Published: 2015-04-21 Views: 520

বৃষ্টিতে সাইকেল চালানোর সময় বিশেষ নিরাপত্তা


Safety-when-you-ride-bicycle-in-the-Rain


বর্তমান সময়ে সাইকেল চালানোটা বেশিরভাগ মানুষের কাছেই একটা সখের ব্যাপার। তবে এখন শুধুমাত্র টা সখ বা পরিবহনের মাধ্যম না বরং ছোট মাঝারি পথ পাড়ি দেওয়ার একটা ভাল মাধ্যমও বটে বিশেষ করে যারা অনেক শক্তিশালী মানুষ তাদের জন্যে। এর মধ্যে অনেক প্রশ্নই থেকে যায় তার মধ্যে অন্যতম হল আবহাওয়া বিচারে আপনি কি ধরনের নিরাপত্তা অবলম্বন করবেন কারণ সাইকেল একটি ক্ষুদ্র যান আর এই কারনে অনেক ধরনের প্রস্তুতি নেওয়ার দরকারও পড়ে। আপনি খেয়াল করলে দেখতে পাবেন যে উন্নত বিশ্বে সাইকেল চালানোর সময় অনেক ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে থাকে এমনভাবে অনেক সময় মানুষ চেনাও কঠিন হয়ে পড়ে। আপনাকে সর্বদাই আবহাওয়া এবং তদসংশ্লিষ্ট ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। বর্ষার সময়ের কথা নতুন করে বলার কিছু নাই কারণ এই সময় আপনি না চাইলেও রাস্তার খারাপ চেহারা আপনাকে দেখা লাগবে সাইকেল নিয়ে বের হলেই। আবার ভাল আবহাওয়া দেখে সাইকেল নিয়ে বের হলেন রাস্তায় পড়ে গেলেন ভারী বৃষ্টির মধ্যে তাই এই সময়ে আপনাকে প্রয়জনীয় সকল ব্যবস্থায় সংগে রাখতে হবে। আপনার জন্যে আমরা কিছু টিপস নিয়ে আজকে হাজির হয়েছি আপনি চাইলে এগুলা গাইড হিসেবে মেনে নিতে পারেন যা আপনাকে কঠিন বৃষ্টির সময়ে বাচিয়ে নিবে এবং আপনার সাইকেল ভ্রমন আরও আরামদায়ক করে তুলবে।

জ্যাকেট পরিধান করে বের হউন
এটি কোন সাধারন জ্যাকেট যেটি আমরা সাধারনত শীতে ব্যবহার করে থাকি বরং এটি হবে ওয়াটার প্রুফ জ্যাকেট যা পানি ভেতরে যেতে দিবে না। আপনি সহজেই আনুমান করতে পারেন যযে এই ক্ষেত্রে কি সুবিধা আপনি পাবেন এবং কি সমস্যায় আপনাকে পড়তে হতে পারে। প্রথমত আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনার নিঃশ্বাসের যেন কোন সমস্যা না হয়। জ্যাকেটের মূল কাজ হল আপনাকে শুষ্ক রাখা তার জন্যে যেন অন্যকোন সমস্যা না হয় সে দিকে আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে। সাইকেল চালানোর সময় ওভার স্পিড বা স্পীড নিয়ে তেমন মাথা না ঘামালেও চলবে কারণ আপনি চাইলেও অতিরিক্ত গতি যা আপনার নিয়ন্ত্রনের বাইরে যেতে পারে এমন গতি তুলতে পারবেন না সে কারনেই আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে যে আপনার জ্যাকেট আপনাকে শুষ্ক রাখতে গিয়ে অন্য কোন সমস্যায় যেন না ফেলে। আপনি জ্যাকেট পরিধান করবেন মুলত স্বাভাবিক রাইডিং বজায় রাখার তাগিদে।

মাডগার্ড ব্যবহার করুন
এই জিনিসটা তেমন গুরুত্বপুর্ন না হলেও বৃষ্টি কাদার দিনে গার্ডের মতই কাজ করে। আপনি রাস্তার কাদা পানি থেকে অনেকখানি বেচে যাবেন যদি মাডগার্ড ব্যবহার করেন। কারণ চাকার ঘুর্নের সাথে উঠে আসা কাদা এবং কাদাযুক্ত পানি মাডগার্ডের কারনেই আটকে যায় যা আপনাকে স্বাভাবিক চলাচলে সহায়তা করবে। একই সাথে আপনার সাইকেলটাও পানিবাহিত দুষন থেকে রক্ষা পাবে। এই সকল কারনেই বৃষ্টির দিনে মাডগার্ড অনেক ভালভাবে কাজে দেয়।

ব্যবহার করুন জুতা এবং হাতের গ্লাভস
বৃষ্টি মানে হল প্রায় সবকিছুই ভেজা আর এই কারনে আপনাকে চেষ্টা করতে করতে হবে যে কিভাবে আপনি নিজেকে ভিজে যাওয়া থেকে দূরে রাখতে পারেন। আপনি যদি ভিজে যান এবং সে অবস্থাতে হয়ত সাইকেল চালাতে পারবেন কিন্তু টা মোটেই সুখকর হবে না। আপনাকে ওয়াটার প্রুফ জুতা এবং হাতের গ্লাভস ব্যবহার করতে হবে যেন হাত পা ভিজে না গিয়ে আপনার নিয়ন্ত্রন হারানোর উপক্রম না হয়। আপনার হাত এবং পা শুকনা থাকলে আপনি স্বাভাবিকভাবে সাইকেলের ওপর নিয়ন্ত্রন রাখতে পারবেন আর টা না হলে আপনার বিপদ হতে পারে। কাজেই হাত এবং পা শুকনা রাখবে এমন জুতা এবং গ্লাভস ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

আপনার সাইকেলটাকে পুনরায় তেল দিয়ে নতুন করুন
এই ব্যাপারটা সাইকেলের জন্যে খুব গুরুত্বপুর্ন কারণ আপনি সাইকেল চালিয়ে ক্লান্ত হয়ে ঘরে ফিরেই গোসল দিয়ে ফ্রেশ হলেন কিন্তু আপনি আপনার সাইকেলটাকে বিভিন্ন রকমের রাস্তায় চালিয়ে কাদামাটি লাগিয়ে ফেলে রাখলে টা কি করে আপনার সাইকেলটার জন্যে উপকারি হতে পারে? আমরা সবাই জানি পানি বা কাদা লৌহজাতীয় বস্তুর জন্যে ক্ষতিকর এবং সাইকেলের জন্যে টা আরও বেশি। এই বিষয়টা মাথায় রেখে আপনাকে আপনার সাইকেলটা পুর্বের মত শুষ্ক করে তারপর ছুটি নিতে হবে। চেইনটাকে ভাল্ভাবে ব্রাশ করুন যতক্ষন না এটা পুর্বের মত হয়ে যায় এরপর তেল দিন নতুন করে। আপনি বিশ্বাস করেন আর না ই করেন, এই পদ্ধতি আপনার সাইকেলটাকে নতুন একটা জান দিবে। একইভাবে আপনাকে আপনার সাইকেলের অন্যান্য ঘুর্ননশীল অংশগুলাকেও পরিষ্কার করে নতুনের মত করতে হবে। যদি এইসব করতে পারেন তাইলে বলা যায় যে আপনার সাইকেলটা আপনাকে অনেকদিন পর্যন্ত সাপোর্ট দিবে।

সাইক্লিং ক্যাপ ব্যবহার করুন
সাইক্লিং হেলমেটটা মুলত গরম বা শীতের সময় বেশ ভাবে কাজে দেয় কিন্তু বৃষ্টির দিনে আপনাকে একরকম হতাশ করবে। কাজেই আপনার উচিত হবে সাধারন একটা ক্যাপ ব্যবহার করার যা দরুন আপনি আপনার চোখে পানি যাওয়া থেকে বেচে যাবেন। আপনি খুব ভাল করেই জানেন যে সাইকেল চালানোর সময় চোখে কিছু গেলে চোকগ খুলে রাখা আর সম্ভব হয় না আর চোখ বন্ধ হলেই যে যে কোন সময় বিপদ হতে পারে টা নতুন করে বলার কিছু নাই। সাধারন আকটি ক্যাপ এই ব্যাপারে আপনাকে অনেকখানি সহযোগিতা করবে।

সর্বদা গতি নিজের নিয়ন্ত্রনে রাখুন
আবহাওয়া খারাপ থাকলে আপনাকে সবসময় রাস্তায় দিকে ফোকাস রাখতে হনে এবং খেয়াল রাখুন গতি যেন কোনভাবেই বেশি না হয় যা আপনার জন্যে নিয়ন্ত্রন করা কষ্টসাধ্য হবে। যখনই রাস্তা ভিজে যাবে, আপনার সাইকেলের চাকআর গ্রিপও কমে যাবে। সঠিক নিরাপত্তার জন্যে এই ব্যাপারটা মাথায় রাখা একান্ত বাঞ্চনীয়।

বাক নেওয়া বা কর্নারিং এর সময় সতর্ক থাকবেন
বৃষ্টিতের সাইকেল চালানোর সময় আপনাকে সবোর্চ সজাগ থাকতে হবে কারণ বৃষ্টির দিন যেমন আনন্দের তেমনই আপনাকে ভোগান্তিতেও ফেলতে পারে যদি আপনি সাইকেল নিয়ে বের হউন এবং এর কিছু কারণ উপরে উল্লেখ করা হয়েছে তার সাথে আরও একটা বড় কারণ হল সামনের দিকটা কম দেখতে পাওয়া। আপনি যখন রাস্তায় বাক নিচ্ছেন আপনার অবশ্যই উচিত হবে যেদিকে বাক নিচ্ছেন সেদিকটা ভালভাবে খেয়াল করা এবং যথাসম্ভন ধীরে যাওয়া।

প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি সাথেই রাখুন
আপনার উচিত সর্বদাই আপনার সাথে প্রয়োজনীয় কিছু যন্ত্রপাতি রাখা কারণ আপনি জানেন না কখন আপনার এই সকল জিনিস গুলা কাজে লাগবে আর আবহাওয়া চরমে থাকলে তো সেগুলা সাথে রাখার অন্য কোন কারণ খোজার দরকারও নাই।

শুধুমাত্র ওপরে উল্লেক্ষিত ব্যাপারগুলাই আপনার নিরাপদ রাইডের জন্যে যথাষ্ট না বিশেষত আবহাওয়া যখন চরম পর্যায়ে। আপনাকে কমন সেন্স এই ক্ষেত্রে আপনার সবচেয়ে বড় অস্ত্র হতে পারে। বৃষ্টির দিনগুলা বিশেষত অনেক আনন্দের কিন্তু আপনি যখন একজন রাইডার হিসেবে রাস্তায় সাইকেল চালাচ্ছেন তবে এই দিনগুলা আপনার জন্যে চ্যালেঞ্জিং বহুগুনে।

আমরা আশা করি যে আপনার প্রতিটা রাইড আপনার মনের মত হোক সর্বোচ্চ নিরাপত্তা সহকারে।
হ্যাপী সাইক্লিং।