Published: 2018-10-17 Views: 469

সিআর-ভেলোসিটি ৬০৭ বাইসাইকেল রিভিউ - মুতাসিম বিল্লাহ রিফাত


CR-Velocity-607-user-review-by-Mutasim-Billah-Rifat


হলিউডের একটি বিখ্যাত চরিত্র হচ্ছে হ্যারি পটার। ছোট থেকে মাঝারি বয়সের অনেকেই তার সম্নন্ধে জানেন তার একটি জাদুর ছড়ি ছিল সেটি দ্বারা সে অনেক রকম জাদু করতে পারত এবং তার একটি জাদুর ঝাড়ু ছিল যার সাহায্যে সে উড়ে বেড়াতো। আমার একটি সাইকেল ছিল যার নাম ছিল হ্যারিপটার, আমি যখন প্লে শ্রেণিতে পড়ি তখন আমার এই জাদুর পুত্রের নামের সাইকেলটি ছিল। বেশ ছোট বয়স ছিল তাই আমার সাইকেলের সাথে দুটি অতিরিক্ত চাকা ছিল কিন্তু আমার ইচ্ছা করত দুই চাকা দিয়ে চালাতে।এর কিছু দিন যাবার পর আমি বাবাকে বলি আমি অতিরিক্ত চাকা ছাড়া চালাতে পারব বাবা আমাকে চাকা গুলো খুলে দিল এবং আমি প্রথম বারের মত দুই চাকাই ভর করে চালাতে সক্ষম হই। আমি যখন সাইকেল নিয়ে বাইরে বের হতাম অনেকেই আমাকে জ্ঞান দিতেন এবং বলতেন যখন সাইকেল চালাবা সামনের দিকে নজর দিবা তাহলে মনযোগ বেশি পাওয়া যাবে।এই ভাবে আমি আমার জাদুর সাইকেলটি ষষ্ট শ্রেণী পর্যন্ত চালাই তবে এর পেছনে একটি মনঃক্ষুন্ন ঘটনা আছে সেই দিন ছিল চাঁদরাত আমার বাসা থেকে আমার সেই জাদুর হ্যারিপটারটি চুরি হয়ে যায় আমার বেশ খারপ লাগে জীবনের প্রথম সাইকেলটি চুরি হয়ে যাওয়া আমার অনেক মন খারাপ হয়েছিল।


CR-Velocity-607-user-review-by-Mutasim-Billah-Rifat

ঠিক ২ বছর পর আমি হিরো কোম্পনির নীল রং এর একটি সাইকেল কিনেছিলাম যদিও আমি মাত্র ১ বছর সাইকেলটি ব্যবহার করেছিলাম এর কারণ হচ্ছে,আমি যখন নবম শ্রেণিতে সেই সময় বাজারে আসে মাউনটেন বাইক এবং আমি সাইকেলটি কিনে ফেলি। এই সাইকেলটি কেনার কারণ হচ্ছে আমার হিরো সাইকেলটি ছিল পুরোনো মডেলের আর এই অক্টোপাস সাইকেলটি ছিল একদম নতুন মডেলের আর আমি সেই সময় থেকে আমি সাইকেল নিয়ে স্টান্ট করার চেষ্টা করতাম আর এই সাইকেলটি বেশ স্টাইলিশ ছিল। আমার যখন হিরো সাইকেলটি ছিল আমি স্টান্ট করতে পারতামনা আর অন্যদের দেখতাম অনেক সুন্দর এবং স্টাইলিশ সাইকেল চালাতো তাই আমিও এই সাইকেলটি কেনার দিকে ঝুকে পড়েছিলাম।এই শখের সাইকেলটি আমার বেশি দিন ছিলোনা কারণ এই সাইকেলটিও পদ্মা গার্ডেন থেকে চুরি হয়ে যায়। আমার এক সময় মনে হল আমার ভাগ্য কি এতই খারাপ! আরও খারাপ লাগলো আমি এই সাইকেলটি দিয়ে স্টান্ট শুরু করেছিলাম মাত্র অনেক কিছু শিখার ছিল এই দিক বিবেচনা করে আমার মন অনেক খানি ভেঙে যায়।


CR-Velocity-607-user-review-by-Mutasim-Billah-Rifat

এই ভাবে আরও অনেক দিন কেটে যায় আমি ২০১৬ সালের দিকে সিআর ভেলোসিটি ৬০৭ মডেলের সাইকেলটি কিনেছিলাম এবং এখন পর্যন্ত ব্যবহার করছি। এর মাঝে আমি আমার বন্ধুদের সাইকেল চালাতাম তার সাথে স্টান্ট করতাম কিন্তু হঠাত একদিন মনে হল নিজের সাইকেলের মত মজা আর কোথাও পাওয়া যাবেনা। অনেক দিক বিবেচনা করে বাইকটি কিনি।


CR-Velocity-607-user-review-by-Mutasim-Billah-Rifat

সাইকেলটি কেনার কিছু কারনঃ
-ডার্ট ফ্রেম ব্যাবহার করা হয়েছে
-সাসপেনসন ভালো
-ব্রেক ভালো
-এবং দাম ছিল সাধ্যের মধ্যে।

তো এই ছিল কিছু কারণ যা আমাকে স্টান্ট করতে এবং আরামের সাথে চালাতে সাহায্য করে।প্রত্যেক জিনিসেরই ভালো খারাপ দিক থাকে আমি কিছু ভালো এবং খারাপ দিক সম্পর্কে বলতে চাই।


CR-Velocity-607-user-review-by-Mutasim-Billah-Rifat

ভালো দিকঃ
-টেকসই
-ভালো ব্রেক
-ডেরা ভালো

খারাপ দিকঃ
-ক্রাংক ভালোনা।